মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন

কখন বুঝবেন আপনি ভুল সম্পর্কে জড়িয়েছেন?

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৯ মার্চ, ২০১৯
  • ১৯ বার পঠিত
প্রতীকী ছবি

লাইফ স্টাইল ডেস্ক, ক্রাইম ওয়াচ

একটি সুস্থ সম্পর্কের জন্য দুজনকেই দায়িত্বশীল হতে হয়। সবার আগে প্রয়োজন সম্পর্কের প্রতি শ্রদ্ধা, বিশ্বাস এবং অবশ্যই আবেগ। তবে অবশ্যই অতিরিক্ত ভাবাবেগ নয়। এবং সম্পর্কের প্রতি বিশ্বাস উভয়পক্ষের থেকেই কাম্য। তাই কোনো একটা সম্পর্কের ভিত্তি প্রস্তর গড়তে যতটা সময় লাগে, ভাঙতে ততটা লাগে না। কোনো সম্পর্কই কখনও একপক্ষের সম্মতিতে হয় না।

আপনি হয়তো ভাবছেন প্রেমিক বা প্রেমিকা সারাদিন নিজের কাজে ব্যস্ত থাকে বলে ফোন করার সময় পায় না। বা ফোন করলে বেশি কলচার্জ কাটে বলে বেশিক্ষণ কথা বলতে চায় না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কিন্তু এই ধারণা ভ্রান্ত হয়। তাই সম্পর্কে জড়ানোর আগে সবকিছু যাচাই করে নেওয়াটাই উত্তম। কিছু লক্ষণ দেখেই আপনি বুঝতে পারবেন সম্পর্কে জড়ানো ঠিক হচ্ছে কিনা। তো জেনে নিন সেইসব লক্ষণগুলো:

► আপনিই সবসময় ফোন করেন : যোগাযোগ বজায় রাখতে আপনার উদ্যোগই সবচেয়ে বেশি। সারাদিন ফোনে, হোয়্য়াটসআপে কী করছিস, কী খাচ্ছিস বলে আপনিই টেক্সট করেন, কিন্তু উল্টোদিকের কোনো রিপ্লাই থাকে না। পরে আপনাকে অজুহাত দিল আমি ব্যস্ত ছিলাম। প্রথম দুদিন বিশ্বাস করবেন, কিন্তু তৃতীয়দিনে আর নয়। সরে আসুন প্রেমের সম্পর্ক থেকে।

► নিজের বন্ধুদের বেশি গুরুত্ব দেয় : কোথাও যাওয়ার কথা থাকলে আপনার প্রেমিকা/ প্রেমিক তার নিজ বন্ধুমহলকেই টেনে আনতে চান। সামান্য খেতে যাওয়ার কথা উঠলেও তিনি বন্ধুদের সঙ্গে যেতেই স্বচ্ছন্দ্য বোধ করেন। আপনাদের দুজনের যাওয়ার কথা আসলেই এড়িয়ে যান। এমন ক্ষেত্রে বুঝুন অন্য কোনো গল্প আছে। সুতরাং কেটে পড়ুন।

► অযথা আপনাকেই ক্ষমা চাইতে বাধ্য করে : যে কোনো সমস্যায় সব রকম দায় সে আপনার উপর চাপিয়ে দেয়। কিন্তু সেই ঘটনায় হয়তো আপনার কোনো ভূমিকাই নেই। অপরপক্ষ তার নিজের ভুল স্বীকারে রাজি নয়। এমতাবস্থায় অন্ধ প্রেম করলে আপনি হয়তো ভাববেন, নিজের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে নিলে শান্তি ফিরবে। তবে আপনাকেই বলছি, এই ভুল বারবার করবেন না। নিজের সম্মান নিজের কাছে।

► ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা নয় : প্রেম তো করছেন। একটা সম্পর্কের মধ্যেও রয়েছেন। দুজনে খাচ্ছেন-দাচ্ছেন, ঘুরছেন, ডেটিং করছেন; কিন্তু কোনো ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নেই। ভবিষ্যতে কবে বিয়ে করব বা পরবর্তীতে কোথায় কী করব এসব আলোচনা করতে গেলেই আরেকজন পিছিয়ে আসেন। প্রসঙ্গ উঠলেই বাগড়া দেন। তখনই বুঝে নেবেন, এই সম্পর্ক ঠিকঠাক নয়; এর কোনো সুখকর পরিণতি হবে না।

► আপনার ব্যাপারে উদাসীনতা : প্রেমিক/প্রেমিকার কোনো ব্যপার নিয়ে আপনি হয়তো খুবই উদ্বেগে থাকেন, ভাবনাচিন্তা করেন। কিন্তু অপরপক্ষ আপনার ব্যপারে সম্পূর্ণ উদাসীন! শরীর খারাপ হোক, কোনো পারিবারিক সমস্যা হোক, তিনি মোটেই মাথা ঘামাতে চান না। কোনোমতে উপরে উপরে কথা বলে এড়িয়ে যান। এমন ঘটনা ঘটলে বুঝে নেবেন যে এটা কোনো সম্পর্কই নয়! সুতরাং সম্পর্ক বাদ দিন এবং সঠিক সঙ্গী খোঁজায় মনযোগ দিন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© ২০১৯ সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত “ক্রাইম ওয়াচ
Theme Download From ThemesBazar.Com