মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন




ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছেলেধরা সন্দেহে শিশুসহ এক যুবক আটক

  • ক্রাইম ওয়াচ / অপরাধ অনুসন্ধানে ২৪ ঘণ্টা / আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০১৯
  • হাসান মাহমুদ পারভেজ।।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়ায় ছেলেধরা সন্দেহ শিশুসহ একজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী

আজ ১১জুলাই বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ার পৌরশহরের দেবগ্রাম এলাকা থেকে জান্নাত আক্তার (১১) নামের এক শিশুসহ জামাল মিয়া(২২) নামের সন্দেহবাজন এক অপহরণকারী কে আটক করে পুলিশে দেয় এলাকাবাসী। উদ্ধারকৃত শিশু জান্নাত আক্তার জেলার কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর গ্রামের মো. টিটু মিয়ার মেয়ে। সে ঢাকার নোয়াব হাবিবুল্লা স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী। আটকৃত জামাল হোসেন জেলার সদর উপজেলার পশ্চিম কাজীপাড়া গ্রামের মৃত জালাল মিয়ার ছেলে।

জানা যায় উদ্ধার হওয়া শিশু জান্নাত তার বাবা মার সাথে ঢাকা আজিমপুর বসবাস করতেন। জান্নাত গতকাল ঢাকা আজিমপুর থেকে অপহরণ হয়ছে বলে জানা যায়।

আরো জানা যায়, জান্নাত তার নানা বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা গৌপীনাথপুর উদ্দেশ্যে বুধবার রাতে ঢাকা থেকে একাই ট্রেনে ওঠে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেল স্টেশনে পৌঁছালে। তখন জান্নাতকে একা রেল স্টেশনে ঘুরতে দেখলে জামাল হোসেন তাকে তার নান বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে আসার সময় জেলার আখাউড়া দেবগ্রাম এলাকায় আসলে এলাকাবাসীর কাছে ছেলেধরা সন্দেহ হলে গণপিটুনি দিয়ে তখন তাকে আটক করে পুলিশ দেয় এলাকাবাসী।

আরো পড়ুন : এবার নয়ন বন্ডকেও হার মানালো মোখলেছ!

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমেদ নিজামী সাংবাদিকদের জানান, ইদানীং সবার মধ্যে একটি গুজব সৃষ্টি হওয়ার কারণে এলাকাবাসী তাকে সন্দেহে করে আটক করেন। প্রাথমিকভাবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মেয়েটি জানিয়েছে সে নিজের ইচ্ছাতেই জামালের সঙ্গে এসেছে। তবে জান্নাতকে অপহরণ করা হয়েছিল কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।



নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..








© ২০১৯ সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত “ক্রাইম ওয়াচ
Theme Download From ThemesBazar.Com